রাখাল রাজা থেকে যেভাবে সংবিধান প্রণেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত

রাজু-বিশ্বাস দুর্জয়ঃ  রাখাল রাজা থেকে সংবিধান  সুরঞ্জিত সেন গুপ্তেরজ ন্ম ৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৩৯ ইং শৈশব কাটে দিরাই উপজেলার আনোয়ার পুর গ্রামে পৈতৃক বাড়ীতে।পিতা: দেবেন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত মাতাঃ সুমতি বালা সেনগুপ্ত। ছোট কাল কেটেছে দিরাই ও আস পাশের এলাকা ঘুরে ফিরে।

প্রাথমিক বিদ্যালয় দিরাই মডেল স্কুল,দিরাই উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মেট্রিকুলেশন সম্পন্ন করেছেন।ডানপিটে চরিত্রের কারণে লেখা পড়ায় ছিলেন অমনোযোগী, নিয়মিত পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতেন না,বিধায় এস এসসি পাস করতে চার বার পরীক্ষা দিতে হয়েছিল!ছোট কাল থেকে সংস্কৃতি মনা ছিলেন এই মহান নেতা,একসময় শখের বসে যাত্রা গানেও অভিনয় করেছেন!.

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন কালীন একটি থিয়েটারের সাথে যুক্ত ছিলেন ঐ থিয়েটারে রামেন্দ্র মজুমদার কাজ করতেন।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জগন্নাথ হলের নির্বাচিত প্রিপেক্ট ছিলেন সুরঞ্জিত সেন।

রাজনীতি:
ছাত্র জীবনে বামপন্থী রাজনীতি উনার হাতে কড়ি!
জল যার,জলা তার, এই আন্দোলনের মাধ্যমে এক সময় শুরু করেছিলেন ভাটির অবহেলিত বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম।এক সময়
১৯৭০ সালে প্রাদেশিক নির্বাচনে সিলেট জেলার ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির পক্ষ থেকে জয়লাভ করেন।

মুক্তি যুদ্ধের ভূমিকা:
৭১ সালের ২৫মার্চ যখন পাকিস্তান হায়নারা এদেশের সাধারণ মানুষের উপর অতর্কিত হামলা চালায়, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত তখন বসে থাকেননি!

পুরু সুনামগঞ্জ তথা ভাটি অঞ্চল কে ঐক্যবদ্ধ করতে কাজ শুরু করেন এবং ভালাট সা’ব সেক্টর কমান্ডারের দায়িত্ব পেয়ে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পরেন ও দেশের স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।

শ্বশুরালয় :
ফরিদপুরের ভাংগা উপজেলায় ভাংগা গ্রামে, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত যখন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন,তখন উনার সহধর্মিণী আজকের দিরাই শাল্লার মাননীয় সংসদ সদস্য ড.জয়া সেন গুপ্তা যুদ্ধ চলা কালীন বাবা মায়ের সাথে কলিকাতায় পাড়ি জমান,সেখানে অবস্থান করছিলেন যুদ্ধ শেষ নাহওয়া পর্যন্ত।

সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বাংলাদেশ থেকে বর যাত্রী সহ কলিকাতায় গমন করেন এবং বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে নববধূকে নিয়ে সদ্য স্বাধীন বাংলা দেশে ফিরে আসেন! সুরঞ্জিত জয়া দম্পতির একমাত্র পুত্র সন্তান “সৌমেন সেনগুপ্ত”।

রাজনীতি :
ছাত্র ইউনিয়ন, ন্যাপ,গণতন্ত্রী পার্টি
একতা পার্টি ও ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগে যোগদান।জীবনের শেষ অবধি আওয়ামীলীগেই ছিলেন।

সুত্রঃ সিলেট প্রতিদিন



চেয়ারম্যান ও প্রধান সম্পাদক : মনির চৌধুরী, সম্পাদক: মো: মোফাজ্জল হোসেন, সহকারী সম্পাদক : মোঃ শফিকুল ইসলাম, ব্যবস্থাপনা পরিচালকঃ সৈয়দ ওমর ফারুক, নির্বাহী সম্পাদক: ঝরনা চৌধুরী।

সম্পাদকীয় কার্যালয়: ১২ পুরানাপল্টন,(এল মল্লিক কমপ্লেক্স ৬ষ্ট তলা)মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।
ফোন বার্তা বিভাগ: ০২-৯৫৫৪২৩৭,০১৭৭৯-৫২৫৩৩২,বিজ্ঞাপন:০১৮৪০-৯২২৯০১
বিভাগীয় কার্যালয়ঃ যশোর (তিন খাম্বার মোড়) ধর্মতলা, যশোর। মোবাইল: ০১৭৫৯-৫০০০১৫
Email : news24mohona@gmail.com, editormsangbad@gmail.com
© 2016 allrights reserved to MohonaSangbad24.Com | Desing & Development BY PopularITLtd.Com, Server Manneged BY PopularServer.Com